বাংলাদেশ টাইম

প্রচ্ছদ» দেশের খবর »শরণখোলায় গ্রাম পুলিশের নেতৃত্বে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাটঃ ৩ আহত
শরণখোলায় গ্রাম পুলিশের নেতৃত্বে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাটঃ ৩ আহত

Sunday, 17 June, 2018 08:59pm  
A-
A+
শরণখোলায় গ্রাম পুলিশের নেতৃত্বে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাটঃ ৩ আহত
শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি ঃ
বাগেরহাটের শরণখোলায় পূর্ব শত্রæতার জের ধরে এক দিনমজুরের বসত  ঘরে হামলা ভাংচুর ও লুটপাট চালানো হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার সকালে উপজেলার খোন্তাকাটা ইউনিয়নের দক্ষিন আমড়াগাছিয়া গ্রামে। এ সময় হামলাকারীরা দিনমজুর আঃ ছালাম খান (৫০) তার বৃদ্ধ পিতা কাঞ্চন আলী খান (৭০) ও ভাইপো কামাল খান (৩৫) কে ধারালো অস্ত্র দিয়ে  উপর্যুপুুরি কুপিয়ে ও লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছেন। পরে স্থানীয়রা পুলিশের সহায়তায় তাদের উদ্ধার করে  প্রথমে শরণখোলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। সেখানে আহতদের অবস্থার অবনতি ঘটলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। এ ঘটনায় এলাকাবাসির মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।
 ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার ও এলাকাবাসিরা জানায়, ১৭ জুন (রবিবার) সকালে একই এলাকার বাসিন্দা রুস্তম মোল্লার ছেলে শামছুল আলম, গ্রাম পুলিশ আনোয়ার মোল্লার নেতৃত্বে স্থানীয় যুবক হাসান, আঃ হালিম, সাব্বির, সোহাগ, রাসেল, কাওসার ও বাইজিদ সহ ১৫/২০ জনের একদল দুর্বৃত্ত আঃ ছালাম খানের বসত বাড়িতে প্রবেশ করে অশ্লীল ভাষায় গালমন্দ শুরু করেন। এতে ছালাম ও তার স্ত্রী ময়না (২৮) প্রতিবাদ করলে ওই র্দুবৃত্তরা ময়না বেগমকে একটি গাছের সাথে বেঁেধ ছালামকে বেধাড়ক পিটুনি শুরু করে । এ সময় তার ডাক চিৎকারে বৃদ্ধপিতা কাঞ্চন ও ভাইপো কামাল হোসেন এগিয়ে আসলে তাদের উপরও হামলা শুরু হয়। ওই সময় জীবন রক্ষার্থে ছালাম পালিয়ে গিয়ে প্রতিবেশি আঃ আউয়াল মৃধার বসত ঘরের দোতলায় আশ্রয় নেয়। হামলাকারীরা ছালামের বসত ঘরে লুটপাট শেষে ঘরটি গুড়িয়ে দিয়ে  আউয়াল মৃধার বাড়িতে প্রবেশ করে এবং ঘরের দরজা ভেঙ্গে ছালামকে হত্যার উদ্দেশে পুঃনরায় মারপিট শুরু করে। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। স্থানীয় বাসিন্দা ইব্রাহীম আকন, আবু কাওছার, লাইলি বেগম, সাকাওয়াত, নান্না মিয়া সহ একাধীক গ্রামবাসি এ ন্যাক্কারজনক ঘটনার সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্ত মূলক বিচার দাবি করেন। তবে অভিযুক্তদের পক্ষে শামছুল আলম দাবি করেন তুচ্ছ বিষয় নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে সামান্য হাতাহাতি হয়েছে মাত্র।
এ ব্যাপারে শরণখোলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ কবিরুল ইসলাম জানান, বিষয়টি তিনি শুনেছেন এবং ওই এলাকায় পুলিশ পাঠিয়ে বিষয়টি তদন্ত করা হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের অভিযোগ পেলে আইনগত পদক্ষেপ নেয়া হবে।#########



এই ধরনের আরও পোস্ট -
   

আরও খবর

TOP