বাংলাদেশ টাইম

প্রচ্ছদ» দেশের খবর »কোটা বহাল রাখার দাবিতে মুক্তিযোদ্ধাদের বিক্ষোভ, মানববন্ধন পাবনায়
কোটা বহাল রাখার দাবিতে মুক্তিযোদ্ধাদের বিক্ষোভ, মানববন্ধন পাবনায়

Tuesday, 10 April, 2018 05:28pm  
A-
A+
কোটা বহাল রাখার দাবিতে মুক্তিযোদ্ধাদের বিক্ষোভ, মানববন্ধন  পাবনায়
রনি ইমরান, পাবনা :
 মঙ্গলবার দুপুর ১২ টায় শহরের মুক্তিযোদ্ধা মার্কেটের সামনে এক মানববন্ধনে পাবনার মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দরা বলেন, স্বাধীনতা বিরোধী জামাত শিবির ও বিএনপির আশ্রিত হয়ে আজ যারা  কোঠার বিরোধীতা করছেন তাদের এ দাবি মেনে নেওয়া হবে না। যারা কোটা পদ্ধতির বিরোধীতা করে তারা স্বাধীনতা বিরোধী পাকিস্থানি প্রেতাত্মা। এ সময় সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমান হাবিব বলেন,  লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত হয়েছে আমাদের সু-মহান স্বাধীনতা। পাকিস্তান আমলে আমাদের দেশের ১০% সরকারি চাকরি হতো না, এখন শতভাগ সরকারি চাকুরী পায়। মুক্তিযোদ্ধাদের কারণে ৯০% সরকারি চাকুরী পাচ্ছে, সেখানে আমাদের ৩০% কোটা বেশি নয়। আমরা কোটার বিরোধীতাকারীদের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।
সদর উপজেলার সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আবুল কাশেম বিশ্বাস  বলেন, চাকরি ক্ষেত্রে ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রকারীদের প্রতিহত করতে হবে।
দেশের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ৩০% কোটা বহাল রাখার দাবিতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান করেছে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ইউনিট কমান্ড পাবনা জেলা, সদর উপজেলা ও পৌর শাখাসহ পাবনা জেলার বিভিন্ন ইউনিটের মুক্তিযোদ্ধা নেতৃবৃন্দ। মানববন্ধন চলাকালে  মুক্তিযোদ্ধাদের ৩০% কোটা বহাল রাখার দাবিতে বক্তব্য দেন, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ পাবনা জেলা ইউনিটের সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমান হাবিব, পাবনা জেলা ইউনিটের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার (১) বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল বাতেন, ডেপুটি কমান্ডার (২) আব্দুল লতিফ সেলিম, আতাউর রহমান আফতাব, তরিকুল আলম নিলু, মো. আজিজুল হক, আবুল খায়ের বিশ^াস, সদর উপজেলার সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আবুল কাশেম বিশ্বাস, হাবিবুর রহমান রঞ্জু, সাবেক পৌর কমান্ডার আব্দুল জলিল শেখ।
এসময় বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব দেওয়ান ওমর ফারুক, মঞ্জু রহমান, শহিদুল ইসলাম, আব্দুল মুন্নাফ, মহররম আলী, আবুল হোসেন, রুস্তম আলী, আব্দুস সামাদ, ইশারত আলী জিন্না, আমজাদ হোসেনসহ জেলা, উপজেলা ও পৌর বিভিন্ন ইউনিটের মুক্তিযোদ্ধাগণ উপস্থিত ছিলেন।
মানববন্ধন শেষে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।



এই ধরনের আরও পোস্ট -
   

আরও খবর

TOP