বাংলাদেশ টাইম

প্রচ্ছদ» ফিচার »মোহনগঞ্জে এবার ধানের বাম্পার ফলন
মোহনগঞ্জে এবার ধানের বাম্পার ফলন

Sunday, 15 April, 2018 09:19am  
A-
A+
মোহনগঞ্জে এবার ধানের বাম্পার ফলন
বাংলাদেশ টাইম : মোহনগঞ্জের কৃষকদের জন্য বিগত দুই বছর ফলসহীন ছিল। কিন্তু এ বছর কৃষাণ কৃষানীরা কষ্ট ভুলে দিনরাত আনন্দে মাতোয়ারা। তারা ঘরে তুলছে নতুন ধান।

ধানের মৌ মৌ গন্ধে মধুময় এখন হাওরের বাতাস। এখানে এখন ধান কাটা ও মাড়াই কাজের ধুম পড়েছে। চারিদিক কৃষকের কন্ঠে আনন্দের গানে মুখরিত।

হাওরের মানুষের বোরো ফসল একমাত্র ভরসা। এ বছর এখনো উজান থেকে পাহাড়ী ঢল নামেনি। আবহাওয়া রয়েছে অনুকূলে। বিরামহীন ধানকাটা চলছে।
বাংলা নববর্ষের প্রথম দিন ১লা বৈশাখ দুপুরে নেত্রকোনার মোহনগঞ্জের ডিঙ্গাপোতা হাওরে বোরো ধান কাটার সময় সেখানে উপস্থিত হন উপজেলা জেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মেহেদী মাহমুদ আকন্দ ও পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আক্তারুজ্জামান। এ সময় ডিঙ্গাপোতা হাওরে ধানকাটার কাজে কর্মরত কৃষক ও বর্গা চাষীদের মাঝে লুঙ্গি, গেঞ্জি ও মিষ্টি বিতরণ করা হয়।

ঐতিহাসিক ডিঙ্গাপোতা হাওরের একুশের দিঘি এলাকায় উচু ফাঁকা জায়গায় ক্ষেত থেকে ধান কেটে এনে মাড়াই করা হচ্ছে। মাঘান সিয়াধার ইউনিয়নের মাঘান, কুড়েরপাড়, শেওড়াতলী, পুটিউগা, বেথাম, গৌরাকান্দা, পেরিরচর, ঘোড়া উৎরা , গ্রামের শত শত কৃষক দিনরাত ধানকাটা ও মাড়াই করে সাথে সাথে ঐ স্থান থেকেই ভিজা ধান সহজে বিক্রি করতে পারছেন।

গত বছর এই দিনে হাওরে  বন্যার পানিতে কৃষকের আধা পাকা ধান পানির নিচে তলিয়ে যায়। পানি উন্নয়ন বোর্ড ও উপজেলা প্রশাসন মাটির বাঁধ নির্মানের কাজ বাস্তবায়ন করে।


কৃষকরা জানায়, এবার বাম্পার ফলন হয়েছে। সামনে কোন প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে তাদের অনটন ঘুচে যাবে। খাদ্য উদ্বৃত্ত এই এলাকার কৃষকরা নিজেদের চাহিদা মিটিয়ে বিপুল পরিমান ধান রপ্তানি করে তাদের দৈনন্দিন খরচ মিটিয়ে জাতীয় অর্থনীতিতে অবদান রাখতে পারে।

এই ধরনের আরও পোস্ট -
   

আরও খবর

TOP