বাংলাদেশ টাইম

প্রচ্ছদ» ফিচার »ডুমুরিয়ায় সৌদি খেঁজুর ও কাটিং পদ্বতিতে তাল চাষের উদ্যোগ
ডুমুরিয়ায় সৌদি খেঁজুর ও কাটিং পদ্বতিতে তাল চাষের উদ্যোগ

Tuesday, 3 April, 2018 07:20am  
A-
A+
ডুমুরিয়ায় সৌদি খেঁজুর ও কাটিং পদ্বতিতে তাল চাষের উদ্যোগ
 ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি ঃ
ডুমুরিয়ায় সৌদি খেঁজুর,পাহাড়ী বনজ বাদাম ও কাটিং পদ্বতিতে তালের চারা উৎপাদন করে বনায়নের উদ্যোগ গ্রহন করেছে উপজেলা সামাজিক বন বিভাগ।ইতোমধ্যে রোঁপিত চারাগাছ গুলি বেশ বড় হয়ে উঠছে এবং গাছ গুলি যথাযথ সময়ে ফল দিবে বলে ধারনা করছে সামাজিক বন বিভাগ। তবে সৌদি খেঁজুর চাষে ডুমুরিয়ার মাটি ও আবহাওয়া উপযোগী নয় বলে মন্তব্য করেছেন উপজেলা কৃষি অধিদপ্তর। তার পরও শতভাগ আশা নিয়ে চারা গাছ গুলি লালন-পালন করে যাচ্ছে বন-বিভাগ।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলা সামাজিক বনায়নে শতাধিক সৌদি খেঁজুরের বীজ থেকে চারা উৎপাদন করা হয়েছে। যা দিনে দিনে বেশ বেড়ে উঠছে।পাহাড়ী বনজ বাদামের বীজ সংগ্রহ করে সে গুলিও চারা উৎপাদনের প্রক্রিয়া চলছে। এ ছাড়া ৯ মাসের ব্যবধান কমিয়ে মাত্র ৪ মাসে কাটিং পদ্বতিতে ২২১ টি তালের চারা উৎপাদন করে তা রোপন করা হয়েছে। উপজেলা ফরেষ্টর মোঃ ফোরকানুল আলম জানান, গত রমজান মাসে সৌদি খেঁজুর খেয়ে তার বীজ সংগ্রহ করা হয়। এর পর যথা সময়ে বীজ গুলি বপন করা হয়। যা আশানুপাতে দিনে দিনে বৃদ্ধি লাভ করছে। গাছ গুলি যথা সময়ে ফল দিবে বলে তার বিশ্বাস। পাহাড়ী বনজ বাদাম বিষয়ে তিনি জানান, প্রায় ১২০টি চারাগাছ উৎপাদনের প্রক্রিয়া চলছে। এ গাছ গুলি  বেশ বড় আকৃতির গাছ হয়ে থাকে। যার প্রতিটি ডালে ডালে বড়-বড় ফল ধরে।ফলগুলি প্রোটিন সমৃদ্ধ , সুস্বাদু ও তৈল উৎপাদনে বিশেষ ভ’মিকা রাখতে পারে। কাটিং পদ্বতিতে তালের চারা উৎপাদন বিষয়ে তিনি বলেন, সাধারনত একটি তালের বীজ থেকে চারা অংকুরিত হতে প্রায় ৯ মাস সময় লাগে। এ পদ্বতিতে মাত্র ৪ মাসে চারা উৎপাদন করে তা বিভিন্ন বনায়নে রোপন করা হয়েছে। গাছ গুলি দ্রæত বৃদ্ধি ও বিস্তার লাভ করছে। তাল গাছ বজ্র নিরোধ,মাটির ক্ষয় রোধ,কাঠ, ফল ও পাতা দিয়ে  আমাদের অনেক উপকারে আসে। বর্তমানে দেশে প্রতি বছর  বজ্রপাতে অনেক মানুষের মৃত্যু হচ্ছে। প্রচুর পরিমান তাল গাছ চাষাবাদে এর প্রতিরোধ অনেকটা কমানো সম্ভব বলে তিনি জানান। কাটিং পদ্বতিতে পলিপ্যাকে চারা উৎপাদন করে অল্প সময়ে এর চাষাবাদ সম্ভব উল্লেখ করে তিনি তাল চাষে সকলকে এগিয়ে আসার আহবান জানান। এ প্রসংগে উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ নজরুল ইসলাম জানান সৌদি খেঁজুর চাষে ডুমুরিয়ার মাটি ও আবহাওয়া উপযোগী নয়।তবে এ গুলি বালু এলাকায় চাষাবাদ করতে পারলে হয়তো সফলতা অর্জন হতে পারে। পাহাড়ী বনজ বাদাম ও কাটিং পদ্বতিতে তাল চাষ বিষয়ে তিনিও এর উপকারিতার বিভিন্ন দিক তুলে ধরে এর চাষাবাদে সকলকে এগিয়ে আসার আহবান জানান।


এই ধরনের আরও পোস্ট -
   

আরও খবর

TOP