বাংলাদেশ টাইম

প্রচ্ছদ» অপরাধ »ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপায় ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি সহ হামলা, গ্রেফতার ৮
ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপায় ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি সহ হামলা, গ্রেফতার ৮

Sunday, 21 January, 2018 01:03pm  
A-
A+
ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপায় ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি সহ হামলা, গ্রেফতার ৮

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আসাদুজ্জামান নান্নু সহ আওয়ামীলীগ নেতা- কর্মীর উপর হামলা চালিয়ে মাথা থেতলিয়ে দেয়া সহ পায়ের রগ কেটে দিয়েছে একটি গ্যাংগ্রুপ। আহতদের অবস্থার অবনতি ঘটায় ফরিদপুর মেডিকেল থেকে শনিবার দুপুরে ঢাকা মেডিকেল পঙ্গু হাসপাতালে রেফার্ট করা হয়েছে। আহত অপর ৩জন হলো আবু বকর কনক, সেলিম মন্ডল, শরিফুল ইসলাম কালাম মন্ডল শুক্রবার রাত ৯টার দিকে বাড়ি ফেরার পথে শৈলকুপা উপজেলার বন্দেখালী মাঠের রাস্তায় হামলার ঘটনা ঘটে। ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ আজ ৮জনকে আটক করেছে ঘটনায় থানায় হত্যা প্রচেষ্টা মামলা দায়ের হয়েছে। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। আহতদের স্বজন, প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয়রা জানায়, বন্দেখালী গ্রামের ইউপি সদস্য আবুল হোসেন আওয়ামীলীগ নেতা আসাদুজ্জামান নান্নু গ্রুপের মধ্যে দীর্ঘদিন বিরোধ চলে আসছিল। বিরোধের জেরে আবুল হোসেন ১৪ বছরের সাজাপ্রাপ্ত ডাকাত আয়ুবের নেতৃত্বে হামলার ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে আবুল হোসেন তার গ্রুপের নেতা-কর্মী পালিয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শী ভানচালক শরিফুল ইসলাম, পথচারী গ্রামের অনেকে জানায়, লাঙ্গলবাধ থেকে তার ভ্যানযোগে বাড়ি ফিরছিল নান্নু সহ তাদের নেতা-কর্মী এসময় বন্দেখালী মাঠের ভেতর পৌছালে ইউপি সদস্য আবুল হোসেন, কুখ্যাত ডাকাত ১৪ বছরের সাজা খেটে আসা আয়ুব, আয়ুবের পুত্র রাজু, নায়েব, বিপ্লব, মামুন, ইশারত, চঞ্চল,তারুফ, মতিয়ার, সায়েদ, পাপ্পু, রেজাউল সহ একদল শসস্ত্র মানুষ তাদের উপর হামলা চালায় এদের সকলের বাড়ি বন্দেখালী গ্রামে। তরবারি, ডেগার, রামদা, হাসুয়া সহ নানান ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাদের পায়ের রগ কাটা হয়। কেনালের মধ্যে ফেলে মাথা থেতলিয়ে দেয়া সহ হাত-পা ভেঙ্গে দেয়া হয়। মুমুর্ষ অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে স্থানীয় লাঙ্গলবাধ ক্লিনিক পরে ফরিদপুর মেডিকেলে পাঠানো হয় অবস্থার অবনতি ঘটায় আওয়ামীলীগ নেতা আসাদুজ্জামান নান্নু আবুবক্কর কনক কে ঢাকা মেডিকেল ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে স্তানান্তর করা হয়েছে। গ্রামবাসী জানায়, ডাকাত আয়ুবের নেতৃত্বে এর আগে এলাকায় নানা ডাকাতি অপরাধ সংগঠিত হয়েছে। গ্রামের একটি গরু চুরির ঘটনার বিচার করায় ইউপি সদস্য আবুল হোসেন, ডাকাত আয়ুবরা ক্ষুব্ধ হয় সংঘবদ্ধ গ্যাংগ্রুপ প্রতিশোধ হিসাবে এমন হামলা চালায় আহত আসাদুজ্জামান নান্নুর মা সাবিহা জানান, তার ছেলে কে ষড়যন্ত্রমূলক ভাবে হামলা করা হয়, এর সাথে ইউপি সদস্য আবুল হেসেন, আয়েব ডাকাত সহ বেশ কয়েকজন জড়িত। ধলহরাচন্দ্র ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের বেশ কিছু নেতা এসব হামলার নেপথ্যে রয়েছে বলে বন্দেখালী গ্রামের অনেকে বলছে। তাদের কারনে এলাকা অশান্ত হয়ে উঠেছে
শৈলকুপার লাঙ্গলবাধ পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ সমিরন সাহা জানান, ৮নং ধলহরাচন্দ্র ইউনিয়নে সামাজিক ভাবে বিরোধ আছে ইউপি সদস্য আবুল হোসেন আওয়ামীলীগ নেতা নান্নু গ্রুপের মধ্যে। এসবের জেরে হামলা হয়েছে। মামলার পর আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে তিনি জানান


এই ধরনের আরও পোস্ট -
   

আরও খবর

TOP