বাংলাদেশ টাইম

প্রচ্ছদ» জাতীয় »সরকার ৪২ হাজার কোটি টাকার বিদ্যুত্ কিনছে ভারত থেকে
সরকার ৪২ হাজার কোটি টাকার বিদ্যুত্ কিনছে ভারত থেকে

Thursday, 5 April, 2018 09:34am  
A-
A+
সরকার ৪২ হাজার কোটি টাকার বিদ্যুত্ কিনছে ভারত থেকে
বাংলাদেশ টাইম : দেশে বিদ্যুতের ক্রমবর্ধমান চাহিদা মেটাতে স্বল্প ও মধ্যমেয়াদী সমাধান হিসেবে ভারত থেকে বিদ্যুত্ আমদানিতে জোর দিচ্ছে সরকার। বড় প্রকল্পগুলো নির্ধারিত সময়ে বাস্তবায়িত না হওয়ায় এ পথ গ্রহণ করা হয়েছে। এরই অংশ হিসেবে ভারতের দুইটি কোম্পানি থেকে নতুন করে ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুত্ আমদানি করা হবে। আমদানির মেয়াদ ১৫ বছর। এ জন্য সরকারের ব্যয় হবে প্রায় ৪২ হাজার কোটি টাকা।

বিদ্যুত্ বিভাগ এবং বিদ্যুত্ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) সূত্র জানায়, ভারতের খোলাবাজার থেকে বিদ্যু আমদানির প্রক্রিয়া অনেক দিন ধরে চলছে। এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটিতে বিদ্যুত্ বিভাগের মাধ্যমে পাঠিয়েছে পিডিবি। অনুমোদন পেলেই চূড়ান্ত চুক্তি সই হবে।

বিদ্যুত্ বিভাগের এক শীর্ষ কর্মকর্তা বলেন, স্বল্পমেয়াদি ক্রয়চুক্তির অধীনে ২০১৮ সালের ১ জুন থেকে ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বিদ্যুত্ আমদানি করা হবে। দীর্ঘমেয়াদি চুক্তির মেয়াদ হবে ২০২০ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ২০৩৩ সালের ১ জুন পর্যন্ত।

পিডিবি সূত্র জানায়, বিদ্যুত্ উন্নয়ন বোর্ডের বিদ্যুত্ কেনার দরপ্রস্তাব আহ্বানের পরিপ্রেক্ষিতে ভারতের চারটি কোম্পানি দরপ্রস্তাব দেয়। এগুলো হলো- এনটিপিসি বিদ্যুত্ ভেপার নিগাম লিমিটেড, সেম্বকর্প গেয়াটরি পাওয়ার লিমিটেড, পিটিসি ইন্ডিয়া লিমিটেড এবং আদানি এন্টারপ্রাইজ লিমিটেড। গত ২৫ ফেব্রুয়ারি দরপ্রস্তাব মূল্যায়ন কমিটি প্রতিবেদন জমা দেয়। এর দাম পড়বে বাংলাদেশি টাকায় প্রতি ইউনিট চার টাকা ৭২ পয়সা। সঞ্চালন মাশুল হিসেবে খরচ পড়বে প্রতি ইউনিট ৭৯ পয়সা। স্বল্পমেয়াদি বাকি ২০০ মেগাওয়াট সরবরাহের জন্য নির্বাচিত হয়েছে পিটিসি ইন্ডিয়া লিমিটেড।  তাদের প্রতি ইউনিট বিদ্যুতের দাম পড়বে চার টাকা ৮৬ পয়সা। সঞ্চালন মাশুল প্রতি ইউনিটে পড়বে ৫৪ পয়সা। দীর্ঘমেয়াদে এনটিপিসি থেকে কেনা বিদ্যুতের দাম পড়বে ৬ টাকা ৪৯ পয়সা। সঞ্চালন মাশুল ৭৯ পয়সা। পিটিসি থেকে আমদানিতব্য বিদ্যুতের দাম পড়বে ৬ টাকা ৫৫ পয়সা। সঞ্চালন মাসুল প্রতি ইউনিটে ১ টাকা ২০ পয়সা।

এদিকে বাংলাদেশে দীর্ঘমেয়াদে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুত্ সরবরাহের ব্যাপারে প্রশ্ন তুলেছে ভারতের বেসরকারি বিদ্যুত্ উত্পাদকরা। ভারতের অভ্যন্তরীণ কয়লা ব্যবহার করে উত্পাদিত বিদ্যুত্ বিদেশে তথা বাংলাদেশে রপ্তানির নিয়ম নেই বলে তারা দাবি করে। গত মার্চেই এ সংক্রান্ত একটি চিঠি দেশটির বিদ্যুত্ মন্ত্রণালয়ে দিয়েছে ভারতের বেসরকারি খাতের বিদ্যুত্ প্রতিষ্ঠানগুলোর জোট অ্যাসোসিয়েশন অব পাওয়ার প্রডিউসারস (এপিপি)।

তবে বিদ্যুত্ বিভাগের এক কর্মকর্তা বলেন, ভারতে বিদ্যুত্ উত্পাদনে কয়লার ব্যবহার নিয়ে এনটিপিসির সঙ্গে সে দেশের বেসরকারি বিদ্যুত্ উত্পাদকদের বিরোধের আগেও ঘটেছে। কিন্তু পিডিবি এনটিপিসির প্রস্তাব গ্রহণ করেছে। সেজন্যও বিরোধ তৈরি হতে পারে। বাংলাদেশ ভারতের সরকারি ও বেসরকারি দুই খাত থেকেই বিদ্যুত্ আমদানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এতে ভারসাম্য থাকবে এবং কোনো সমস্যা হবে না।

এই ধরনের আরও পোস্ট -
   

আরও খবর

TOP