বাংলাদেশ টাইম

প্রচ্ছদ» জাতীয় »খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ৫টি মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি
খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ৫টি মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি

Tuesday, 13 March, 2018 09:39am  
A-
A+
খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ৫টি মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি
বাংলাদেশে টাইম : জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় বেগম খালেদা জিয়াকে ৪ মাসের জামিন দিয়েছে হাইকোর্ট। ৫ টি বিষয় বিবেচনা করে সীমিত সময়ের জন্য তার জামিন মঞ্জুর করা হয়। বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ গতকাল এ জামিন মঞ্জুরের আদেশ দেন।

আদেশে বলা হয়, আপিলকারীর সাজার মেয়াদ, বয়স ৭৩ বছর, শারীরিক অসুস্থতা, বিচার চলাকালে নিয়মিত আদালতে হাজির থাকা, পেপারবুক প্রস্তুত সময়সাপেক্ষ বলে তার জামিন মঞ্জুর করা হলো।

আজ মঙ্গলবার সকালে আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ আবেদন দাখিল করা হবে বলে জানিয়েছেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। তিনি বলেছেন, জামিনের আদেশের সত্যায়িত অনুলিপি পাইনি। তবে জামিনের বিরুদ্ধে আপিল তৈরির প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। ফলে ওই স্থগিত আবেদনের নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত খালেদা জিয়ার কারামুক্তির সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

এ দিকে কুমিল্লার নাশকতার একটি মামলায় গতকাল খালেদা জিয়াকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। পাশাপাশি ২৮ মার্চ তাকে কুমিল্লার আদালতে হাজির করতে হাজিরা পরোয়ানাও ইস্যু করা হয়েছে। ফলে এ মামলায় তাকে নিম্ন আদালত থেকে জামিন নিতে হবে। ফলে শিগগিরই তার কারামুক্তির সম্ভাবনা নেই বলে মনে করছেন আইনজীবীরা। খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ৫টি মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি রয়েছে।

 এ পর্যায়ে আদালত অ্যাটর্নি জেনারেলের বক্তব্য জানতে চায়। অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, এটা স্পর্শকাতর একটি মামলা। এতিমের টাকা কিছু লোক তুলে নিয়ে আত্মসাত্ করেছে যার ডকুমেন্ট রয়েছে। তিনি বলেন, যেহেতু বিচারিক আদালত থেকে নথি এসেছে সেহেতু জামিন না দিয়ে পেপারবুক প্রস্তুতের নির্দেশ দিয়ে আপিল শুনানি করা হোক।

জবাবে জয়নুল আবেদীন বলেন, আপিল শুনানির বিষয়টি তো সময় সাপেক্ষ ব্যাপার। আর আমরা তো শুধুই জামিন চেয়েছি। এ পর্যায়ে দুর্নীতির মামলায় সাত বছরের সাজাপ্রাপ্ত দু’জন সাবেক সংসদ সদস্যের হাইকোর্ট থেকে সম্প্রতি জামিন পাওয়ার বিষয়টিও নজির হিসেবে তুলে ধরেন তিনি।

এ পর্যায়ে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, সাবেক রাষ্ট্রপতি এইচএম এরশাদের দুর্নীতির মামলায় সাজা হওয়ার পর সাড়ে ৩ বছর কারাভোগ করে জামিন পেয়েছেন। আদালত বলেন, তখন এরশাদের বয়স কত ছিল? অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, ৬৫ বছর। আদালত বলে, তখন তো তিনি (এরশাদ) শারীরিকভাবে সুস্থ ছিলেন। এরপর কারাগার থেকে বেরিয়ে বিয়ে করে পুত্র সন্তানের জনক হয়েছেন।

২৮ মার্চ খালেদাকে হাজির করতে হবে

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের জগমোহনপুর এলাকায় যাত্রীবাহী নৈশকোচে দুর্বৃত্তদের পেট্রোল বোমা হামলায় ৮ যাত্রী হত্যা মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে আগামী ২৮ মার্চ কুমিল্লার আদালতে হাজির করার জন্য হাজিরা পরোয়ানা জারি করেছে আদালত।

গুলশান থানা পুলিশের আবেদনের প্রেক্ষিতে কুমিল্লার অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও ৫নং আমলি আদালতের বিচারক মুস্তাইন বিল্লাহ গতকাল সোমবার বিকালে এ আদেশ দেন।

এই ধরনের আরও পোস্ট -
   

আরও খবর

TOP