বাংলাদেশ টাইম

প্রচ্ছদ» মুক্তমত »যুক্তরাষ্ট্রে আবারও কৃষ্ণাঙ্গ নির্যাতন; মিশিগান অঙ্গরাজ্যে বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভ
যুক্তরাষ্ট্রে আবারও কৃষ্ণাঙ্গ নির্যাতন; মিশিগান অঙ্গরাজ্যে বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভ

Thursday, 26 March, 2015 05:04pm  
A-
A+
যুক্তরাষ্ট্রে আবারও কৃষ্ণাঙ্গ নির্যাতন; মিশিগান অঙ্গরাজ্যে বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভ
 কৃষ্ণাঙ্গ নাগরিকের উপর শ্বেতাঙ্গ পুলিশি নির্যাতনের বিরুদ্ধে আবারও ফুঁসে উঠেছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির মিশিগান অঙ্গরাজ্যে এক সন্দেহভাজন কৃষ্ণাঙ্গকে দুই শ্বেতাঙ্গ পুলিশ সদস্য পেটাচ্ছে-এমন একটি ভিডিও প্রকাশের পর, তাদের বরখাস্তের দাবিতে চলছে বিক্ষোভ।

পুলিশের হাতে নির্যাতনের শিকার ৫৭ বছর বয়সী ওই কৃষ্ণাঙ্গ নাগরিকের নাম ফ্লয়েড ডেন্ট। জানুয়ারিতে ইঙ্কস্টারের একটি ট্রাফিক মোড় থেকে গ্রেফতার হন তিনি। ঔদ্ধত্বপূর্ণ আচরণ, গাড়িতে কোকেন রাখা এবং পুলিশকে হয়রানির অভিযোগ আনা হয় ডেন্টের বিরুদ্ধে। পরে ওই দুই পুলিশ সদস্য ডেন্টকে মাথায় আঘাত করাসহ শারীরিক নির্যাতন করেন বলে দেখা যায় প্রকাশিত ভিডিওতে।

গেল মঙ্গলবার ভিডিওটি প্রথম প্রচার করে ডব্লিউডিআইবি টিভি। সংবাদমাধ্যমটিকে দেয়া সাক্ষাতকারে নিজের উপর পুলিশের চালানো নির্যাতনের বর্ণনা দেন দীর্ঘদিন ধরে ফোর্ড মোটর কোম্পানিতে কর্মরত ডেন্ট। তিনি বলেন, “আমি খুব ভাগ্যবান যে ওই ঘটনার পরও বেঁচে গেছি। তারা যখন আমার মাথায় আঘাত করছিল এবং ঘাড় চেপে ধরছিল তখন মনে হয়েছে মারা যাচ্ছি আমি। শ্বাস নিতে কষ্ট হচ্ছিলো। পুলিশ কর্মকর্তাদের কাছে বার বার বাঁচার আকুতি জানাচ্ছিলাম।”ডেন্ট জানান ওই আঘাতের পর দুইদিন হাসপাতালে থাকতে হয়েছে তাকে। পরে তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলো প্রত্যাহার করে নেয়া হয়। ডেন্টের বিরুদ্ধে আগেরও কোন অভিযোগ ছিল না পুলিশের রেকর্ডে।

তবে ওই দুই শ্বেতাঙ্গ পুলিশ কর্মকর্তার দাবি, ঘটনার দিন গাড়ি থামাতে বলার পর তা না মেনে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিল ডেন্ট। পরে তাকে আটকানো হলে ডেন্ট পুলিশের উপর আক্রমণের চেষ্টা করে বলেও অভিযোগ করেছেন তারা। তবে ভিডিওর কাছে তাদের সে দাবিটি মিথ্যে বলেই মনে হয়েছে।

ইঙ্কস্টারের পুলিশ প্রধান ভিকি ইয়স্ট জানান, মিশিগান পুলিশ ঘটনার তদন্ত করছে এবং ওই দুই কর্মকর্তাকে ছুটিতে পাঠানো হয়েছে। গেল বছর ফার্গুসন, মিজৌরি এবং নিউইয়র্কে শ্বেতাঙ্গ পুলিশের হাতে কৃষ্ণাঙ্গ নাগরিক নিহতের ঘটনায় বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠেছিল যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য।

এই ধরনের আরও পোস্ট -
   

আরও খবর

TOP