বাংলাদেশ টাইম

প্রচ্ছদ» স্পটলাইট »রেকর্ড গড়ার প্রত্যাশায় ১৫ হাজার ৩১৩ জন ঝাড়ু হাতে ঢাকায় রাস্তায়
রেকর্ড গড়ার প্রত্যাশায় ১৫ হাজার ৩১৩ জন ঝাড়ু হাতে ঢাকায় রাস্তায়

Friday, 13 April, 2018 03:48pm  
A-
A+
রেকর্ড গড়ার প্রত্যাশায় ১৫ হাজার ৩১৩ জন ঝাড়ু হাতে ঢাকায় রাস্তায়
বাংলাদেশ টাইম ঃ ঢাকার জিরোপয়েন্ট থেকে গোলাপশাহ মাজার পর্যন্ত ৩০০ মিটার রাস্তা একসঙ্গে ঝাড়ু দিল ১৫ হাজার ৩১৩ জন মানুষ; আর এই কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার বিষয়ে নগরবাসীর মধ্যে সচেতনতা তৈরির পাশাপাশি গিনেস বুকে নাম লেখানোর আশা করছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন। গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে একসঙ্গে সবচেয়ে বেশি মানুষের একসঙ্গে রাস্তা ঝাড়ু দেওয়ার রেকর্ডটি এখন আছে ভারতের গুজরাট রাজ্যের ভদোদরা পৌরসভার দখলে। ২০১৭ সালের ২৮ মে তাদের আয়োজনে ৫ হাজার ৫৮ জন একসঙ্গে শহরের আকোটা-ডান্ডি বাজার ঝাড়ু দিয়ে পরিষ্কার করেছিল। সেই রেকর্ড ছাড়িয়ে যেতে শুক্রবার ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের আয়োজনে ‘ডেটল পরিচ্ছন্ন ঢাকা’ কর্মসূচিতে অংশ নেন ১৫ হাজার ৩১৩ জন।  সকাল সাড়ে ৭টা থেকে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্নতাকর্মী, স্বেচ্ছাসেবকসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ বিভিন্ন এলাকা থেকে জড়ো হন নগর ভবনে। নাম নিবন্ধনের পর সবার হাতে একটি করে ব্যান্ড পরিয়ে দেওয়া হয়। মাথায় পরিয়ে দেওয়া হয় সাদা টুপি, আর হাতে ঝাড়ু। পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচির জন্য আগে থেকেই পল্টন মোড়, শিক্ষাভবন মোড়, বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ গেইট এবং নগরভবনের সামনের রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়। নিবন্ধনের পর সকাল সাড়ে ৯টা থেকে প্রত্যেককে স্ক্যান করে গোলাপশাহ মাজারের সামনে দিয়ে প্রবেশ করানো হয়। একে একে নাম ওঠে ১৫ হাজার ৩১৩ জনের।  গোলাপশাহ মাজার থেকে জিরোপয়েন্ট পর্যন্ত সড়কে লাইনে দাঁড়িয়ে পড়েন সবাই। প্রতি পঞ্চাশ জনের দলের নেতৃত্বে ছিলেন একজন করে স্টুয়ার্ড। বেলা পৌনে ১১টায় মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকনের নেতৃত্বে সবাই একসঙ্গে এক মিনিট ঝাড়ু দেন ওই সড়ক। গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের প্রতিনিধিরা পুরো কর্মসূচি পর্যবেক্ষণ ও রেকর্ড করেন। তাদের পাঠানো প্রতিবেদনের ভিত্তিতেই নির্ধারিত হবে- বাংলাদেশের এই আয়োজন রেকর্ড বইয়ে উঠবে কি-না। রাস্তা ঝাড়ু দেওয়ার পর সেখান থেকে শোভাযাত্রা করে সবাইকে নিয়ে পল্টন মোড়ে যান মেয়র। সেখানে তিনি বলেন, ঢাকাবাসীর জন্য এটি একটি বিশেষ দিন, আনন্দের দিন। “আজ রেকর্ড গড়ার দিন। আজকে আমরা যে রেকর্ড গড়তে যাচ্ছি তা হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে উৎসর্গ করলাম। মেয়র বলেন, “আমরা দেখিয়েছি, ঢাকাবাসী নতুন প্রজন্মকে একটি সুন্দর পরিচ্ছন্ন ঢাকা উপহার দেওয়ার জন্য প্রস্তুত। আর এর মাধ্যমে আমরা আরেকটি বার্তা দিতে চাই, তা হল- বাঙালি পরিচ্ছন্নতা সচেতন জাতি।” অন্যদের মধ্যে সাংসদ গোলাম দস্তগীর গাজী, সাংসদ সানজিদা খাতুন, প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা, ঢাকা মহানগর পুলিশের কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া, ডিএসসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা খান মোহাম্মদ বিলাল, রেকিট বেনকিজারের পরিচালক (বিপণন) সৈয়দ তানজিম রেজওয়ান ও জিটিভির ব্যবস্থাপনা পরিচালক আমান আশরাফ ফায়েজ অনুষ্ঠানে দেন। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা উত্তম কুমার রায় জানান, ডিএসসিসির এ আয়োজনের আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতির জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র গিনেস কর্তৃপক্ষের কাছে জমা দেওয়া হবে।

এই ধরনের আরও পোস্ট -
   

আরও খবর

TOP